আপনার দাড়ি সুন্দর করার জন্য ৭-টি দারুন টিপস

আপনার দাড়ি সুন্দর করার জন্য ৭-টি দারুন টিপস

Spread the love

বর্তমানে সারা বিশ্বের লোক লকডাউন ও হোম কোয়ারেন্টাইন এ আছে। দাড়ি সুন্দর রাখাটা এখন খুবি হিমশিম একটি ব্যাপার। বেশিরভাগ মানুষই নাপিত এবং সেলুনের উপর নির্ভরশীল, এরকম পরিস্থিতিতে আপনি কী করে নিজের দাড়ির সৌন্দর্য ধরে রাখবেন জেনে নিন।

দাড়ি পুরুষের একটি বিশেষ লুক ফুটিয়ে তোলে বর্তমানে দাড়ি পুরুষের একটি ফ্যাশন হয়ে দাঁড়িয়েছে। মেয়েরা ছেলেদের দাড়িকে খুব পছন্দ করে। আমেরিকার একটি গবেষণায় দেখা গেছে, যে সকল পুরুষের দাড়ি আছে সেই সকল পুরুষের উপর মেয়েরা বেশি আকৃষ্ট হয়। সাধারণত দাড়ি বড় হয়ে গেলে এর সঠিক পরিচর্যা করতে হয়, তা না হলে দাড়ি রুক্ষ ও ময়লা হয়ে জট পাকিয়ে যেতে পারে। তাছাড়া চেহারার লুকিং চেঞ্জ করতে দাড়ি বিশেষ ভূমিকা রাখে। চলুন তাহলে জেনে নেই দাড়ি সুন্দর করার টিপস গুলি

১| দাড়িতে চিরুনি ব্যবহার করুন:

আপনার দাড়ি বড় হয়ে গেলে বার বার চিরুনি করুন। নয়তো জটলা পাকিয়ে যেতে পারে। এতে আপনার চেহারার সৌন্দর্য কমে যাবে। দাড়ি আঁচড়ানো জন্য এক ধরণের বিশেষ চিরুনি পাওয়া যায়, যেটি বাজারে সহজে আপনি কিনতে পারবেন। তবে দাড়ির ভিতরের অংশ পরিষ্কার করার জন্য ছোট ব্রিশেলস চিরুনি ব্যবহার করা উত্তম।

2| সাইনিং এর জন্য তেল ব্যবহার :

দাড়ি বড় হয়ে গেলে এর সূক্ষতা, রুক্ষতা ও চুলকানির পরিমান বৃদ্ধি পায়। তাছাড়া ঘামের দুর্গন্ধ বের হয়। এর থেকেরক্ষা পেতে আপনার দাড়িতে সাইনিং তেল ব্যবহার করুন। এতে দাড়ি নরম হবে দেখতে হবে সাইন এবং ঘামের দুর্গন্ধ দূর হবে।

3| ট্রিমিং এর ব্যবহার করুন:

দাড়ি বড় হয়ে গেলে এর ঘনত্ব বৃদ্ধি পায় তাই ঘনত্ব কমাতে ট্রিমিং করুন। এছাড়াও ট্রিমিং এর সাহায্যে সহজেই দাড়ি ছেটে নেওয়া যায়। ট্রিম মেশিন না থাকলে সহজেই এটি বাজার বা অনলাইন থেকে কিনে নিতে পারবেন।

4| শ্যাম্পু ব্যবহার:

দাড়ি দীর্ঘদিন পরিষ্কার না করলে এর ভেতর থেকে এক প্রকার দুর্গন্ধ বের হয় যেটা খুবি বিরক্তকর। তাই পরিষ্কার ও দুর্গন্ধ দূর করতে সফট শ্যাম্পু ব্যবহার করুন।

5| ছাটাই করার কাঁচি:

অনেক সময় দাড়ি বড়ো হয়ে গেলে তা ট্রিমিং না করে চিরুনি ও কাঁচির সাহায্যে ছেটে নিতে পারেন। এতে আপনার দাড়ি এলোমেলো দেখাবে না। আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে চিরুনির সাহায্যে আঁচড়িয়ে কাঁচি দিয়ে ছাটাই করবেন এতে আপনার দাড়ির সৌন্দর্য ঠিক থাকবে।

6| বিয়ার্ড অয়েল ব্যবহার:

দাড়ির ময়েশ্চারাইজার বৃদ্ধি করতে বিয়ার্ড অয়েল বৃদ্ধি করুন। বিয়ার্ড অয়েল দাড়ি গজাতেও সহায়তা করে। শরীরের হরমোন অনুযায়ী অনেক সময় নাও গজাতে পারে। বাজার বা অনলাইনে অনেক ধরণের বিয়ার্ড অয়েল পাওয়া যায়, আপনি আপনার পছন্দ অনুযায়ী এটি কিনে নিতে পারেন।

৭| অন্নান্য:

দাড়ির নিয়মিত পরিচর্যা করতে ভিটামিন-ই ক্যাপ, অলিভ অয়েল, নারিকেল এর তেল, লেবুর রস ইত্যাদি ব্যবহার করুন। এতে আপনার দাড়ি থাকবে মসৃন, চকচকে ও আকর্ষণীয়।

বর্তমান পরিস্থিতিতে ঘরে থাকুন, নিজেকে সুরক্ষিত রাখুন আর ঘরে বসে নিজেই নিজের দাড়ির পরিচর্যা করুন।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *